1. ruhul.lemon@gmail.com : admin :
  2. tanjid.fmphs@gmail.com : তানজিদ শুভ্র : তানজিদ শুভ্র
  3. contact.mdrakib@gmail.com : Rakib Howlader : Rakib Howlader
শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৩:২৪ পূর্বাহ্ন

রোজা উপলক্ষে দোকানপাট চালু হবে, বাড়বে ছুটি

  • প্রকাশ: সোমবার, ৪ মে, ২০২০
  • ১৭৩ বার পঠিত

সোমবার গণভবন থেকে রংপুর বিভাগের জেলাগুলোর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময়ের শুরুতে বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। সকাল ১১টায় এই কনফারেন্স শুরু হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন,‘করোনায় দেশের মানুষ এবং অর্থনীতি যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেটাই একমাত্র লক্ষ্য। অর্থনীতিকে সচল রাখতে সুরক্ষার যথাযথ পদক্ষেপ নিয়ে কলকারখানা খোলা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, জেলাভিত্তিক ক্ষুদ্রশিল্পগুলো চালু রাখার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাউডলাইন অনুসরণ করে সব পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। সবাইকে স্বাস্থ্য বিধি মানার আহ্বানের পাশাপাশি আবারও তুলে ধরেন বিভিন্ন প্রণোদনার তথ্য।’ তিনি বলেন,‘করোনার সংক্রমণ না হলে ২০২১ সালের মধ্যে দেশে দরিদ্রের সংখ্যা কমানো সম্ভব হতো।’

এদিকে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ২৬ মার্চ থেকে সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। প্রথম দফায় ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি দেওয়া হয়। পরবর্তী সময়ে আরও চার দফা বাড়িয়ে ছুটির মেয়াদ ৫ মে পর্যন্ত করা হয়। সাধারণ ছুটির মধ্যেই সরকার পোশাক কারখানাসহ সরকারি গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর সীমিত আকারে খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া সরকারের বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয় সীমিত আকারে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ধীরে ধীরে কিছু শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলে দিচ্ছি৷ যারা বের হবেন, তারা নিজে সুরক্ষিত থাকবেন, আর অপরকে সুরক্ষিত রাখবেন। আর বের হলে অবশ্যই মাস্ক পড়ে বের হবেন।

বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, রমজান মাস মানুষের সুবিধার জন্য সীমিত আকারে বাজার খোলার নির্দেশ দিয়েছি, যাতে মানুষ তার কেনাকাটা করতে পারে। আর ছোটখাটো ক্ষুদ্র শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলতে পারবেন। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে বড় ধরনের জনসমাগম যাতে না হয়। এতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকি থাকে। বড় ধরনের জনসমাগম করা যাবে না।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, আমরা করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি, তার ফলও আমরা পাচ্ছি।

ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন রংপুর বিভাগের পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, নীলফামারী, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, রংপুর এবং গাইবান্ধা জেলার প্রশাসন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব ড. আহমদ কায়কাউস ভিডিও কনফারেন্স সঞ্চালনা করছেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে ছয় দফা পৃথক ভিডিও কনফারেন্সে ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট, রাজশাহী, বরিশাল এবং ময়মনসিংহ বিভাগের ৫৬টি জেলার সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন।

সোনালী সংবাদ

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো বার্তা..
নিঃস্বত্ত্ব © সংগৃহিত তথ্যগুলোর স্বত্ব সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের। আমাদের নিজস্ব কোন স্বত্ব নেই।

কারিগরি সহায়তায় WhatHappen