1. ruhul.lemon@gmail.com : admin :
  2. tanjid.fmphs@gmail.com : তানজিদ শুভ্র : তানজিদ শুভ্র
  3. contact.mdrakib@gmail.com : Rakib Howlader : Rakib Howlader
শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

ফুটেছে কৃষ্ণচূড়া; সেজেছে গ্রীষ্মের প্রকৃতি

  • প্রকাশ: শুক্রবার, ৮ মে, ২০২০
  • ৯৪ বার পঠিত

এস.এম আবিরঃ

বৈশাখের অন্যতম ফুল কৃষ্ণচূড়া। উজ্জ্বল কমলা লাল রঙের ফুলটির সৌন্দর্য এতটাই আকর্ষণীয় যে অনেক দূর থেকে তা সকলের নজর কাড়ে। যে এলাকায় কৃষ্ণচূড়া ফোটে, পুরো এলাকাকে রাঙিয়ে তোলে নিজের রঙে। কৃষ্ণচূড়া গাছের নিচে দাঁড়ালে মনে হয় কোনো রক্তিম বর্ণের উৎসব চলছে। মাথার উপর লাল সবুজের চাদোয়া, পায়ের নিচে ঝরা ফুলের

বৈশাখ মাস শেষ হ‌তে চলছে। গ্রীষ্মের দাবদাহে পুড়ছে প্রকৃতি। এর মধ্যে যেন আশীর্বাদ হয়ে দেখা দেয় নানা রঙের ফুল। তার মধ্যে অনন্য কৃষ্ণচূড়া। এ সময় কৃষ্ণচূড়ার গাছ লাল লাল ফুলে ছেঁয়ে যায়।

প্রকৃতির সেজেছে তাঁর আপন রুপ নিয়ে
এই গ্রীষ্মের কড়া রোদে কৃষ্ণচূড়ার আবীর নিয়ে প্রকৃতি সেজে উঠেছে বর্ণিল রূপে। দেখলেই মনে হয় প্রকৃতিতে কৃষ্ণচূড়ার রঙয়ে আগুন জ্বলছে। যে দি‌কে চোখ যায় যেন সবুজের মাঝে লালের মূর্ছনা, প্রকৃতির এই অপরূপ সাজ দেখে দু’চোখ জুড়িয়ে যায়।

বৈশাখ এলেই যেনো প্রকৃতির ভালোবাসার কথা জানান দিতে লাল লাল হয়ে হেঁসে উঠে কৃষ্ণচূড়া ফুল। চোখ ধাঁধানো কৃষ্ণচূড়া ফুলের সৌন্দর্য যেন হার মানায় ঋতুরাজকেও। ঋতুচক্রের আবর্তনে কৃষ্ণচূড়া তার মোহনীয় সৌন্দর্য নিয়ে আবারো হাজির হয়েছে প্রকৃতির মাঝে। কৃষ্ণচূড়ার লাল আবীর গ্রীষ্মকে দিয়েছে এক অন্য মাত্রা।

নজর কেড়ে যাবে যে কারোরই, এমন লাল চোখে ধরে যায় দূর থেকেই। বৈশাখে কৃষ্ণচূড়া তার লাল আবীর নিয়ে পাকা রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে আছে। দেখে মনে হচ্ছে ঋতুরাজ বসন্তের ভালোবাসা নিয়ে কৃষ্ণচূড়া তার সমস্ত রঙ প্রকৃতির মাঝে ছড়িয়ে দিয়েছে। এই কৃষ্ণচূড়া গাছটির দিকে তাকালেই তার মুগ্ধতায় যে কারোরেই দৃষ্টি কেড়ে নেয়।

কৃষ্ণচূড়া ফুল লাল ও হলুদ রঙয়ের হয়ে থাকে। লাল রঙয়ের ফুলকে কৃষ্ণচূড়া ও হলুদ রঙয়ের ফুলকে রাধাচূড়া বলা হয়। তবে হলুদ রঙে রাধাচূড়া এখন তেমন দেখা যায় না বলেই চলে। আমাদের দেশে এপ্রিল মে মাসে এই ফুল ফোটে। বছরের অনান্য সময় এই ফুল বা গাছ সচারাচর চোখে না পড়লেও এপ্রিল মে মাসে যখনি গাছে নতুন পাতা বা ফুল ফোটা শুরু করে তখনি যেন পথচারির নজর কাড়ে মনমুগ্ধকর এই কৃষ্ণচূড়া। আবার ছোট ছোট বাচ্চা ছে‌লে মে‌য়েরা খেলার জন্য গাছ থে‌কে পে‌রে নেয় কৃষ্ণচূড়ার ফুল। বহু দূর থেকে দেখলে মনে হবে যেন গাছ গুলোতে আগুন জ্বলছে।

মাথার উপর লাল সবুজের চাদোয়া, আর পায়ের নিচে যেন ঝরা ফুলের বিছানা
তবে আমরা যে গাছটাকে কৃষ্ণচূড়া নামে চিনি, তার আদি নিবাস পূর্ব আফ্রিকার মাদাগাস্কার। ভিনদেশী এ ফুল আমাদের দেশে নতুন নামে পরিচিত হয়ে
কৃষ্ণচূড়া গাছের উচ্চতা খুব বেশি হয় না। সর্বোচ্চ ১১ থে‌কে ১২ মিটার পর্যন্ত লম্বা হয়। তবে এর শাখা পলব অনেক দূর পর্যন্ত ছড়ানো থাকে। বছরের অন্য সময় গাছ গুলো চোখে পড়ে না খুব একটা। এপ্রিল ও মে মাসে মানুষের দৃষ্টিতে আসতে থাকে, তখনই সে তার আপন রুপে নিজেকে সাজাতে থাকে আকর্ষণীয় ফুলে। গ্রীষ্মের তাপদাহে যখন এ ফুল ফোটে তখন এর রূপে মুগ্ধ হয়ে পথচারীও চলার পথে ক্ষণিক থমকে তাকান।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো বার্তা..
নিঃস্বত্ত্ব © সংগৃহিত তথ্যগুলোর স্বত্ব সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের। আমাদের নিজস্ব কোন স্বত্ব নেই।

কারিগরি সহায়তায় WhatHappen