1. ruhul.lemon@gmail.com : admin :
  2. tanjid.fmphs@gmail.com : তানজিদ শুভ্র : তানজিদ শুভ্র
  3. contact.mdrakib@gmail.com : Rakib Howlader : Rakib Howlader
শনিবার, ২১ নভেম্বর ২০২০, ০৬:৫০ অপরাহ্ন

শোভাদের ঈদ | আকরাম হোসেন শুভ

  • প্রকাশ: রবিবার, ২৪ মে, ২০২০
  • ১৫ বার পঠিত

শোভাদের ঈদ
আকরাম হোসেন শুভ

মিস্টি মেয়ে ছোট্ট শোভা
পার্কে পার্কে ঘোরে
সারাটা দিন ছুটে ছুটে
মালা বিক্রি করে।
লিকলিকে তার দেহের গড়ন
চিত্রা হরিন চোখ
কাঁধে ছাঁটা সুঠাম চুলে
সুগোল টোলী মুখ।

হাঁফ প্যান্ট আর কামিজ গায়ে
পন্স সেন্ডেল পায়
বয়সটা তার ছয় কি সাত
হয়ে নিরুপায়।
বস্তি ঘরে মা খানি তার
অসুখে জ্বর জ্বর
পরিবারে আর কেউ নাই
তার কাঁধেই নির্ভর।

নতুন ভাবে করোনা দৈত্য
দাঁত কেলিয়ে তাড়ে
এবার শোভা মহা চিন্তায়
চলবে কেমন করে।
দোকান পাট পার্ক চলেনা
নাইকো বিনোদন
মালা বেঁচতে বেরিয়ে পড়লে
মারতে কতক্ষন….।

শিশু শোভা সবই বোঝে
মায়ের গ’লা ধরে
বলে মাগো এবার বুঝি
না খেয়ে যাব মরে।

ত্রান নিয়ে রসিকতা
অনিয়মের খেলা
যার লাগবেনা সে পায় বেশি
দুঃখিদের অবহেলা।
সামান্য কিছু ত্রান পেয়েছে
ওষুধ নাইকো ঘরে
ব্যথায় কাতর দুঃখিনী মা
চিল্লাচিল্লি করে।

ঈদ আসতে নাইকো দেরি
শিশু শোভা ভাবে
ফুরিয়ে গেছে যেটুকু চাল
এখন কি খাবে।
ঈদের খুশি নাই প্রয়োজন
মায়ের অসুখ পুঁজি
নিরন্ন থাকা ঈদ উপহার
শোভাদের জন্য বুঝি।

মায়ের আগে মেয়ের মৃত্যু
হলে শোভা খুশি
বেঁচে থেকে হতে চায়না
খোদার কাছে দোষী।
কোথায় সাম্য মানবতা
কে বাজায় ধর্মের ঢাক
আল্লাহ্ তুমি পাওনা শুনতে
শোভাদের করুন ডাক।

আজ দিনে শোভা ফুল কুড়িয়ে
সারারাত গেঁথেছে মালা
মায়ের কান্না সইতে পারেনা
পেটে ক্ষুদার জ্বালা।
কাল সে কোনো মানবেনা বাধা
লোক যেখানে যাবে ছুটে
টাকার বদলে ভাগ্যে যদি
লাঠির বাড়িও জুটে।

সকাল হতেই বেরিয়ে গেছে
শোভা ফেরিওয়ালী
বুকে তাহার বাঁচার শক্তি
চোখে আগুন বিজ্লী।
মুখে মাক্স কাঁধে ব্যগ
ফুলের মালা হাতে
আকুতোভয়ে শোভা
ছোটে বিরঙ্গনার বেশে।

হতেই হবে ব্যবসা তার
ভাংতে হবে ভয়
মায়ের ওষুধ পেটের ক্ষুধা
করতেই হবে জয়।
যেখানে মানুষ সেখানেই শোভা
মালার দামটা হাঁকে
তাড়িয়েছে কেউ দুরদুর করে
কেউ দয়ায় কিনেছে তাকে।

সব ক’টি মালা হয়েছে বিক্রি
একটিও নাই বাকি
মালাতো বেঁচেনি সাহস বেঁচেছে
জীবনের নিয়ে ঝুঁকি।
টাকা গুনে শোভার
চোখে খুমিতে আসে জল
কে বলেছে অভুক্ত সে
গায়ে অসিম বল।

তরতর করে চটুল পায়ে
চাল ডাল কিনে বেশ
মায়ের ওষুধ কিনতে ছাড়েনি
বাজার করা শেষ।
এবার শোভা ফিরছে বাড়ি
চোখে ঈদের খুশি
এমন সময় করছে ধাওয়া
পিছনে পুলিশের বাঁশি।

লকডাউনে থাকবি সবাই
বাইরে কেন তোরা
তোদের জন্য মরবে পুলিশ
আমরা আছি যারা।
সবলেরা দৌড়ে পালায়
দুর্বল পড়ে ওঠে
এ্যম্বোলেন্সের ধাক্কায় শোভা
অজ্ঞান হয়ে থাকে।

কপাল থেকে ঝরছে রক্ত
ব্যাগটা চাকায় পিষ্ট
ঘরে ঘরে ঈদের খুশি
কে দেখে কাহার কষ্ট।
হতহুশে শোভা বলে
খবর না জানিও
দয়া করে ব্যাগটা আমার
দুঃখিনী মাকে দিও।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো বার্তা..
নিঃস্বত্ত্ব © সংগৃহিত তথ্যগুলোর স্বত্ব সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের। আমাদের নিজস্ব কোন স্বত্ব নেই।

কারিগরি সহায়তায় WhatHappen