1. ruhul.lemon@gmail.com : admin :
  2. tanjid.fmphs@gmail.com : তানজিদ শুভ্র : তানজিদ শুভ্র
  3. contact.mdrakib@gmail.com : Rakib Howlader : Rakib Howlader
বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:৫৩ অপরাহ্ন

ঝিনাইদহে আরও ৭ জনের করোনা শনাক্ত

  • প্রকাশ: রবিবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩৫ বার পঠিত

ঝিনাইদহে আরও ৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। শনিবার প্রথমবারের মতো দুজনের করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে মাত্র একদিনের ব্যবধানে রোববার (২৬ এপ্রিল) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৯ জনে।

জেলার সিভিল সার্জন সেলিনা বেগম বলেন, রোববার আক্রান্ত সাতজনের মধ্যে ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় দুইজন, কালীগঞ্জে দুজন, কোটচাঁদপুরে একজন, মহেশপুরে একজন ও শৈলকুপায় একজন রয়েছেন। শনিবার আক্রান্ত দুজনের মধ্যে একজন ছিলেন সদর উপজেলায় ও অপরজন কালীগঞ্জ উপজেলার।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, আক্রান্ত সাতজনের মধ্যে একজন নারী, বাকি সবাই পুরুষ। এদের বেশির ভাগের বয়স ২০ থেকে ৪০ এর মধ্যে। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৫ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। যার মধ্যে আটজনের শরীরে পজিটিভ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিসংখ্যানবিদ আর মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অ্যাম্বুলেন্স চালক রয়েছেন। ঝিনাইদহ সদরে নতুন আক্রান্ত দুজনের মধ্যে জেলা শহরের গীতাঞ্জলী সড়কে এক গৃহবধূ ও পোড়াহাটী ইউনিয়নের এক যুবকের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জেলায় করোনা রোগী শনাক্তের পরও নিয়ন্ত্রণহীনভাবে চলছে শহরের ছোট যানবাহনগুলো। ৬–৭ জন যাত্রী ঠাসাঠাসি বসিয়ে চলাচল করছে ইজিবাইকগুলো। রিকশা-মোটরসাইকেলেও থাকছে একাধিক যাত্রী। এই অবস্থা ঝুঁকি আরও বাড়িয়ে দেবে বলে মনে করছেন অনেকে।

সিভিল সার্জন সেলিনা বেগম এই অবস্থার কথা জানিয়ে বলেন, মানুষ সবকিছু বোঝার পরও ঘরে থাকছে না। তাদের ঘরে না রাখতে পারলে পরিস্থিতি খারাপ হতে পারে।

তিনি জানান, করোনা আক্রান্ত রোগীরা কী অবস্থায় আছে দ্রুত খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে এ জেলাকে লকডাউন করার জন্য আগেই প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সাজ্জাদ হোসেন জানান, শনিবার জেলায় প্রথম ধরা পড়া দুই করোনা রোগীর মধ্যে একজন ছিল ঝিনাইদহ শহরের উপশহরপাড়ার এক নারী। তার অবস্থা ভাল। ওই নারীর শরীরের করোনার কোন উপসর্গই নেই। তারপরও তার করোনা রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে।

শৈলকুপা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. রাশেদ আল মামুন জানান, শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের পরিসংখ্যানবিদ আক্রান্ত হয়েছেন। তার রিপোর্ট সকালে হাতে পেয়েছি। হাসপাতালের বর্হিবিভাগে সেবা আপাতত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ওই পরিসংখ্যানবিদের বাড়ি ঝিনাইদহ শহরের চাকলাপাড়ায় বলে জানা গেছে।

ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ জানান, পরিস্থিতি মোকাবেলায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করা হয়েছে। গোটা জেলা লকডাউনের বিষয়ে উচ্চপর্যায়ে আলোচনার পর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান বলেন, রোববার সকাল থেকে জেলার সব প্রবেশ পথে নতুন চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। ইতোমধ্যে সেনাবাহিনী ও র‌্যাবের টহল জোরদার করা হয়েছে।

সূত্রঃ পূর্বপশ্চিমবিডি

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো বার্তা..
নিঃস্বত্ত্ব © সংগৃহিত তথ্যগুলোর স্বত্ব সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের। আমাদের নিজস্ব কোন স্বত্ব নেই।

কারিগরি সহায়তায় WhatHappen