1. ruhul.lemon@gmail.com : admin :
  2. tanjid.fmphs@gmail.com : তানজিদ শুভ্র : তানজিদ শুভ্র
  3. contact.mdrakib@gmail.com : Rakib Howlader : Rakib Howlader
বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:৪৭ অপরাহ্ন

রাজশাহী পলিটেকনিকে রাতের আঁধারে গাছ কাটা নিয়ে ক্ষুব্ধ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

  • প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২০
  • ২৩৮ বার পঠিত

রাজশাহী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এ রাতের আঁধারে প্রায় ৫০ টি গাছ কাটা নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়েছেন শিক্ষক-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা। তারা জানায় এভাবে অনেক অন্যায় হয়েছে পলিটেকনিকে। অভিযোগ উঠেছে ইন্সটিটিউট এর অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দীন আহম্মেদ এর উপর।

অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দীন আহম্মেদ এর উপর অভিযোগ করে কিছু শিক্ষার্থীরা এটার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এবং সুষ্ঠু বিচার চেয়েছেন। অনেক শিক্ষার্থী জানিয়েছেন এই ধরনের প্রিন্সিপাল স্যার চাইনা। জড়িতদের বহিষ্কার ও বিচার চাই।

এছাড়াও রাজশাহী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দীন আহম্মেদ এর আগে মসজিদে উন্নয়ন এর নামে অনেকবার টাকা নিয়েছে এবং বিদায় ও নবীন বরন অনুষ্ঠান করার নামে ইন্সটিটিউট এর প্রায় ৪০০০ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৩০০ টাকা করে নিয়েছে কিন্তু অনুষ্ঠান হয়নি এবং টাকার হিসাব ও দেয়নি বলে অভিযোগ করেছে অনেক শিক্ষার্থী।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসের কারণে ছুটি রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট। সেই সুবাদে ভেতরে চলছে গাছ কেটে বিক্রি করার মহোৎসব। গত কয়েকদিনে রাতের আঁধারে অন্তত অন্তত ৫০টি বিশালাকার গাছ কেটে বিক্রি করা হয়েছে। যার মধ্যে অধিকাংশই মেহেগুনি গাছ।

যদিও কর্তৃপক্ষের দাবি, গাছগুলো বিক্রির করে পলিটেকনিকের মসজিদ কমিটিকে টাকা দেয়া হয়েছে। অভিযোগ রয়েছে সরকারি প্রতিষ্ঠানের গাছ কাটাতে সামাজিক বন বিভাগের অনুমতি নেয়া হয়নি।  ফলে গাছ কাটা অর্থ তোছরুপেরও অভিযোগ উঠেছে।

গাছ কাটার বিষয়টি স্বীকার করে অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিন আহমেদ দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, ‘২০-২৫টি মরা গাছ কাটা হয়েছে। গাছ কাটার জন্য একটি কমিটি করা হয়েছিল। ওই কমিটির তিন সদস্যই এটি দেখভাল করছেন। তারা গাছ বিক্রির প্রায় ৮০ হাজার টাকা পলিটেকনিকের মসজিদের কমিটির কাছে জমা দিয়েছেন।’

অধ্যক্ষের কথা অনুযায়ি যদি ২০ থেকে ২৫টি গাছ কাটা হয়ে থাকে। তাহলে এতো পুরানো গাছের দাম মাত্র ৮০ হাজার টাকা? আর টাকা গেল কোথায় এমন প্রশ্ন থেকেই যায়।

রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে গিয়ে গাছ কাটার প্রমাণও মিলেছে। গাছ কাটার পরে কোনো কোনো স্থানে লতা-পাতা দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়েছে। তবে এ নিয়ে দায়িত্বরত কোনো কর্মচারী মুখ খুলতে চাননি।

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে দেশজুড়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি ঘোষণার পর থেকে রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটটিও বন্ধ রয়েছে। আর সেই ফাঁকে চলছে গাছ কাটার মহোৎসব। এ নিয়ে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো বার্তা..
নিঃস্বত্ত্ব © সংগৃহিত তথ্যগুলোর স্বত্ব সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের। আমাদের নিজস্ব কোন স্বত্ব নেই।

কারিগরি সহায়তায় WhatHappen